হিন্দুস্তান শশ্মানখানা দেখেছে এখনো শশ্মানখানার আজাব দেখেনি – যুব জাগপা

মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) ও হযরত আয়েশা (রাঃ) কে নিয়ে ভারতীয় ক্ষমতাসীন দল বিজেপি’র মুখপাত্র নূপুর শর্মা ও দিল্লি শাখার গণমাধ্যম প্রধান নবীন কুমার জিন্দালের ঔদ্ধত্যপূর্ণ মন্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন যুব জাগপা’র সভাপতি নজরুল ইসলাম বাবলু, সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার মোঃ সিরাজুল ইসলাম ও সাংগঠনিক সম্পাদক হোসনে আরা হাসু।

নেতৃবৃন্দ বলেন, ধর্মীয় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিকে উসকানি দিয়ে ভারতীয় ক্ষমতাসীন দল বিজেপির নেতারা বিশ্ব মুসলমান ও তরুণদের কলিজায় আগুন লাগিয়ে দিয়েছে! যখন মুসলমানরা বিশ্বকে শান্তির আহবানে ডাকে তখনি অমুসলিমদের ষড়যন্ত্র শুরু হয়। তবে সম্প্রতি ভারতীয়রা মুসলমানদের উপর বর্বরতা চালাচ্ছে। মসজিদ ভেঙ্গে দিয়ে মন্দির নির্মাণের খেলায় মেতেছে। মূলত বিজেপি রাজনৈতিক দল নয়, এরা মানুষ খাওয়া শকুনের দলে পরিনত হয়েছে। এবার বিশ্ব মুসলিম গর্জে উঠলে হিন্দুস্তান শশ্মাণ দেখছে পরে শশ্মাণের আজাব দেখতে পাবে।

যুব জাগপা’র নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, মুসলমানদের উপর আঘাতের চিহ্ন আর বর্দাশত করা হবে না। ভারতীয়দের অবিশ্যই মনে রাখতে হবে মহান সৃষ্টিকর্তা আল্লাহর প্রেরিত বিশ্ব মানবতার দ্রুত হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) কে নিয়ে যে কোন জাতির কটুক্তি প্রতিহত করার ক্ষমতা বিশ্ব মুসলিমদের আছে। সাধু সাবধান।

নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক দিল্লীর সরকারের কাছে নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানোর আহ্বান জানিয়ে বলেন, বিজেপির কুলাঙ্গার নেতাদের বিশ্বের মুসলমাদের কাছে ক্ষমা চাইতে হবে। অন্যথায় সকল অশান্তি সৃষ্টির জন্য ভারতীয় ক্ষমতাসীন দল বিজেপি দায়ী এড়াতে পারবেনা।

যুব জাগপা আজ বুধবার (৮ জুন-২০২২) গণমাধ্যমে পাঠানো একযুক্ত বিবৃতিতে এসব কথা বলেন।