প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা পঙ্গু করার ষড়যন্ত্রের নাম পিলখানা ট্র্যাজেডি – ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান

জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি – জাগপা’র সভাপতি ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান বলেছেন, ২০০৯ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি শুধুমাত্র নিছক কোন বিডিআর বিদ্রোহ ছিল না বরং এক গভীর ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে দেশের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা পঙ্গু করার পায়তারা করা হয়েছিল।

আজ ২৫ ফেব্রুয়ারি পিলখানা ট্র্যাজেডি স্মরণে এক বিবৃতিতে জাগপা সভাপতি বলেন, এক নিমেষে ৫৭ জন সেনাকর্মকর্তাকে হত্যা করা হল অথচ এক যুগ পেরিয়ে গেলেও সেই নির্মম-নৃশংস হত্যাযজ্ঞের স্বয়ংসম্পূর্ণ, অবিতর্কিত এবং গ্রহণযোগ্য তদন্ত আজও হয় নাই। দেশের মানুষ জানতে চায় কার স্বার্থে, কার নির্দেশে সেদিন দেশপ্রেমিক সেনাবাহিনীর মেধাবী কর্মকর্তাদের হত্যা করা হয়েছিল? ৫৭টি পরিবার আজও কাদে, রক্তের দাগ এখনো শুকায়নি, সত্যকে ধামাচাপা দিয়েই এক যুগ পার করে দেওয়া হয়েছে।

ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান আরও বলেন, অবিলম্বে ২৫ ফেব্রুয়ারিকে ‘শহীদ সেনাদিবস’ ঘোষণা করতে হবে। ষড়যন্ত্রের খলনায়কদের মুখোশ খুলে দিতে হবে এবং তাদের বিচারের মুখোমুখি করতে হবে।