নরেন্দ্র মোদি বাংলাদেশে অশান্তি ও যুদ্ধ সৃষ্টি করে দিয়ে গেল: রাশেদ প্রধান

জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি জাগপা সহ-সভাপতি ও রাজনৈতিক মুখপাত্র রাশেদ প্রধান বলেছেন বন্ধুপ্রতিম রাষ্ট্রের প্রধানমন্ত্রীর সফরে যদি আমার সোনার বাংলায় অশান্তি সৃষ্টি হয় তাহলে সেরকম অতিথির আমাদের প্রয়োজন নেই। নরেন্দ্র মোদি বাংলাদেশে অশান্তি ও যুদ্ধ সৃষ্টি করে দিয়ে গেল।

আজ গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে রাশেদ প্রধান বলেন, এক মোদিকে কেন্দ্র করে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে বাংলার রাজপথ রক্তাক্ত হয়েছে, সৃষ্টি হয়েছে দাঙ্গা ফ্যাসাদ, স্যোশাল মিডিয়া ব্যবহারে করা হয়েছে হস্তক্ষেপ, শান্তিপ্রিয় ইসলামের তৌহিদী জনতার উপর করা হয়েছে মর্মান্তিক অত্যাচার। যা কখনোই গ্রহণযোগ্য নয়, আমি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

জাগপা সহ-সভাপতি ও রাজনৈতিক মুখপাত্র আরো বলেন, দেশের সুবর্ণজয়ন্তীতে দেশের মানুষকে দূরে রেখে বিদেশি অতিথি এবং বিতর্কিত নরেন্দ্র মোদিকে নিয়ে যে উৎসব করা হলো তা আমার সোনার বাংলার জন্য এক কলঙ্কজনক অধ্যায় হিসেবে ইতিহাসের পাতায় লিপিবদ্ধ হয়ে থাকবে। দুই দেশের প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকে পাঁচটি হাস্যকর সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে অথচ বাংলার মানুষ তিস্তার পানি পায় নাই, সীমান্তে হত্যা বন্ধের চুক্তি হয় নাই, বন্ধুপ্রতিম রাষ্ট্রের নামে ভারতের দাদাগিরিও বন্ধ হয় নাই। বাংলার মানুষের মনে আজ প্রশ্ন জেগেছে আমরা কি স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী পালন করলাম নাকি ভারতের প্রধানমন্ত্রীর বিনোদন সফর আয়োজন করলাম?