ইতিহাস কারো ব্যক্তিগত কিংবা দলীয় সম্পত্তি নয় – ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান

জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি – জাগপা সভাপতি ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান বলেছেন, স্বাধীনতা লাভের মাত্র ১৫ দিন পর, স্বাধীনতা সংগ্রামের নবম সেক্টর কমান্ডার মেজর এম এ জলিলকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। যার অপরাধ ছিল বাংলাদেশের সম্পদ ও পাকিস্তানিদের ফেলে যাওয়া অস্ত্রশস্ত্র লুটপাট করে ভারতে পাচারকালে ভারতীয় সেনাবাহিনীর গাড়িবহরকে বাধা প্রদান। তিনি স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম রাজবন্দী। যুদ্ধপরবর্তী লুণ্ঠন এবং তৎকালীন মুজিব সরকারের দুঃশাসনের বিরুদ্ধে কথা বলায় স্বাধীনতা সংগ্রামের নবম সেক্টর কমান্ডার মেজর এম এ জলিল কৃতী মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানসূচক উপাধি থেকেও হয়েছেন বঞ্চিত।

আজ মেজর এম এ জলিলের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে জাগপা সভাপতি আরও বলেন, ইতিহাস বিকৃতির নোংরা খেলা আজও চলছে। নিজেদের প্রয়োজনে কুচক্রী মহল ইতিহাসের মহানায়কদের খলনায়ক হিসেবে প্রচার করেন আর খলনায়কদের বানায় নায়ক। মনে রাখবেন ইতিহাস কারো ব্যক্তিগত কিংবা দলীয় সম্পত্তি নয়, আর তাই আপনাদের ইতিহাস বিকৃতির প্রচেষ্টা কোনদিন সফলতার মুখ দেখবেনা। আজকের বাংলাদেশকে গনতন্ত্রহীন এক অকার্যকর রাষ্ট্র তৈরির কার্যক্রমও প্রতিদিন ইতিহাসের পাতায় লিপিবদ্ধ হচ্ছে। একদিন ইতিহাসের কাঠগড়ায় আপনাদেরও দাঁড়াতে হবে।

এদিকে সকাল ৯ টায় জাগপা সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ইকবাল হোসেনের নেতৃত্বে জাগপা প্রতিনিধি দল মিরপুরে মেজর জলিলের কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন এবং মাগফেরাত কামনায় মোনাজাত করেন।