অবিলম্বে শ্রমিক ছাটাইর সিদ্ধান্ত বাতিল করুন – শ্রমিক জাগপা

শ্রমিক জাগপার সভাপতি শেখ জামাল উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান তিতাস এক যুক্ত বিবৃতিতে গার্মেন্ট মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ’র সভাপতি কতৃক শ্রমিক ছাটাইয়ের ঘোষণার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় বলেন করোনা মহামারীতে শ্রমিকরা যখন দিশেহারা তখন গার্মেন্টস মালিকদের এই শ্রমিক ছাটাইয়ের ঘোষণা পুরো শ্রমিক সমাজকে এক বিপন্নতার দিকে ঠেলে দিবে।

মহামারীর শুরুর দিকেই গার্মেন্ট মালিকরা সরকারের পক্ষ থেকে শ্রমিকদের বেতন বোনাস পরিশোধের জন্য পাঁচ হাজার কোটি টাকা নামমাত্র সুদে প্রণোদনা ঋণ পেয়েও শ্রমিকদের বঞ্চিত করেছে। তারা শ্রমিকদের বেতন বোনাস পরিশোধ না করে বরং ৪০% বেতন কেটে রেখেছে। যা শ্রমিকদের সাথে স্পষ্ট প্রতারণা।

বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় বলেন, সরকার এবং মালিকপক্ষ সিদ্ধান্ত নিয়ে ঘোষণা দিয়েছিল করোনা মহামারীকালীন সময়ে কোন শ্রমিক ছাটাই হবে না ও কোন কারখানা লে-অফ হবে না। কিন্তু সেই সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করেই মালিকরা হাজার হাজার শ্রমিক ছাটাই করেছে, লে-অফ করে কর্মহীন করেছে হাজার হাজার শ্রমিককে যেটা এখনো অব্যাহত আছে !

এই মহামারীর সময়ে গতকাল বৃহস্পতিবার বিজিএমইএ সভাপতির শ্রমিক ছাটাইয়ের ঘোষণায় মালিকরা আরো হাজার হাজার শ্রমিককে ছাটাই করে কর্মহীন করে অমানবিকতার চরম পর্যায়ে নিক্ষেপ করবে।

ইতিপূর্বে মালিকরা অর্ডার বাতিল আবার সেই অর্ডারের পণ্য যথাসময়ে শিপমেন্ট করার নামেই শ্রমিকদের সাথে অমানবিক নিষ্ঠুরতা করেছিল। আর করোনা মহামারীতে অর্ধাহারী অনাহারী শ্রমিকরা চাকরি বাচানো এবং বকেয়া পাওনার আশায় ছুটে ফিরে জীবনীশক্তি ক্ষয় করেছেন।

বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় অবিলম্বে গার্মেন্ট মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ’র প্রতি শ্রমিক ছাটাইয়ের অমানবিক নিষ্ঠুরতা বন্ধের আহ্বান জানান। অন্যথায় যেখানে ছাটাই সেখানেই প্রতিরোধ গড়ে তোলার জন্য শ্রমিকদের প্রতি আহবান জানান